1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ঈদগাঁও বাজা‌রে সড়‌কের উপর দোকান নির্মাণ, ভূ‌মি অ‌ফি‌সের নি‌ষেধাজ্ঞা ইসলামের প্রচার-প্রসারে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি: শেখ হাসিনা। হ্নীলার দালাল আবছার রোহিঙ্গা নারীসহ বিমানবন্দরে আটক। জনগণের দুর্ভোগ লাগব করতে দ্রুত টেকসই সড়ক উপহার দিবো -কউক চেয়ারম্যান বিষপানে পুত্রবধূ নাসরিনের আত্মহত্যা সাংসদের ওয়ার্ডের রাস্তার ইট বিক্রি করে দিল মেম্বার! ইসলামবাদে (ব্র্যাক)আইন সহায়তা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত কক্সবাজারে যুবককে শিকল দিয়ে বেঁধে বর্বর নির্যাতন। সেনাবাহিনীর নব প্রধান হচ্ছেন এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। ঝালকাঠিতে উপায়’র মাধ্যমে ট্রাফিক মামলার জরিমানা পরিশোধে ঝালকাঠি জেলা পুলিশের চুক্তি

আড়াই মাসে বাংলাদেশ পেয়েছে ৬ বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স

  • আপডেট টাইম: Monday, September 21, 2020
  • 102 বার পড়া হয়েছে

অর্থ ডেস্কঃ করোনাভাইরাস মহামারীকালে এখনও গতি হারায়নি রেমিটেন্স। অর্থবছরের আড়াই মাসে ৬ বিলিয়ন ডলার দেশে পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। এই অঙ্ক গত বছরের একই সময়ের চেয়ে দেড় গুণ বেশি।মহামারীর প্রভাবে গত এপ্রিলে রেমিটেন্স কমলেও তারপর থেকে রেমিটেন্সে চলছে ঊধ্বগতির ধারা। কোরবানির ঈদের পর রেমিটেন্স কমবে বলে ধারণা করা হলেও তা বরং বাড়ছেই। কেন্দ্রীয়ব্যাংকের তথ্যে দেখা যায়, চলতি সেপ্টেম্বর মাসের ১৭ দিনে প্রায় ১৪৩ কোটি ৪৪ লাখ (১.৪৩ বিলিয়ন) ডলার পাঠিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এই অঙ্ক গত বছরের সেপ্টেম্বরের পুরো মাসের প্রায় সমান। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসের ১৭ দিনে ৭৩ কোটি ৮৪ লাখ ডলার রেমিটেন্স দেশে এসেছিল। সবমিলিয়ে চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের আড়াই মাসেই (১ জুলাই থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর) ৫৯৯ কোটি ৬৬ লাখ (৬ বিলিয়ন) ডলার রেমিটেন্স এসেছে। এই অঙ্ক গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৫৯ শতাংশ বেশি। মহামারীকালে আড়াই মাসে ৬ বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স আসায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেন, “এই মহামারীর মধ্যেও আমাদের প্রবাসী ভাই-বোনেরা রেকর্ড পরিমাণ রেমিটেন্স দেশে পাঠাচ্ছেন। এতে আমরা সাহস পাচ্ছি।” মহামারীকালে জুলাই মাসে রেমিটেন্সে রেকর্ড   রেমিটেন্স: রেকর্ডের পর ধসের শঙ্কা  রেমিটেন্সে আরও গতি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেমিটেন্স আসছে যুক্তরাষ্ট্র থেকে   অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে ২৬০ কোটি ডলার রেমিটেন্স এসেছিল, যা ছিল মাসের হিসেবে বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। ধারণা করা হচ্ছিল, প্রবাসী বাংলাদেশিরা কষ্টের মধ্যেও ঈদের সময় স্বজনদের কাছে বেশি অর্থ পাঠাচ্ছেন, আর অনেকে কাজ হারিয়ে দেশে ফেরার পরিকল্পনা করছেন বলে জমানো অর্থ আগেই পাঠিয়ে দিচ্ছেন বলে রেমিটেন্স বাড়ছে। কিন্তু অগাস্টের শুরুতে কোরবানির ঈদের পরও রেমিটেন্সের গতি থামেনি। পুরো মাসে ১৯৬ কোটি ৩৯ লাখ ডলার রেমিটেন্স এসেছে দেশে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme