1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ইসলামাবাদ ইউনিয়ন আ,লীগের উদ্যোগে ৭২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীদের দলীয় পদ পদবীর বিষয়ে অসনি সংকেট ছয় দফা দাবীতে সিবিআইইউ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। ইসলামাবাদে গভীর রাতে সশস্ত্র হামলাঃনগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটের অভিযোগ! পশ্চিম টেকপাড়া সমাজকল্যাণ পরিষদ কর্তৃক শহর পুলিশ ফাঁড়ি কক্সবাজার এর সাথে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ঈদগাঁও প্রেস ক্লাবের জরুরী সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ঈদগাঁওতে পরিবেশ আন্দোলনের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। ঈদগাঁওর বাঁশঘাটায় তিনটি দোকান সিলগালা বাঁশখালী ছনুয়ার মানুষের যোগাযোগ সড়কের বেহাল দশা অবসানের পথে ইসলামাবা‌দের আ‌লো‌চিত জবর মুল্লুক হত্যা মামলার আসামী‌দের রিমা‌ন্ডে নি‌তে গ‌ড়িম‌সি পু‌লি‌শের !

শাহ আলম চেয়ারম্যানের ইন্দনে রায়হানকে হত্যাকরে মোরশেদ

  • আপডেট টাইম: Friday, September 25, 2020
  • 105 বার পড়া হয়েছে

বার্তা রিপোর্টঃ

কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার হলদিয়া পালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলমের ইন্দনে মোঃ রায়হান কবির কে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। নিহত রায়হান কবির হত্যা মামলার এজাহারে খুনি মোরশেদের আশ্রয় দাতা ও রায়হান হত্যার প্ররোচনাকারী হিসেবে হলদিয়া পালং এর চেয়ারম্যান শাহ আলমের কথা উল্যেক্ষ আছে। রায়হানকে হত্যা করার জন্য চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলম দীর্ঘদিন ধরে খুনি মোরশেদ কবির রিপনকে প্ররোচিত করে আসছিলো বলে এজাহারে উল্যেক্ষ করা হয়।

রায়হান হত্যা মামলার বাদি নিহত রায়হানের বোন গোল নাহার মামলার এজাহেরে উল্যেক্ষ করেন, খুনি মোরশেদের গডফাদার হলো হলদিয়া পালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলম। চেয়ারম্যান শাহ আলমের ছত্রছায়ায় খুনি মোরশেদ দিন দিন ব্যাপরোয়া হয়ে উঠে। রায়হানকে হত্যা করার জন্য চেয়ারম্যান শাহ আলম খুনি মোরশেদকে দীর্ঘদিন ধরে প্ররোচনা দিয়ে আসছিলো।

১৯ সেপ্টেম্বর (শনিবার) দুপুরে উখিয়া উপজেলার হলদিয়া পালং ইউনিয়নের মনির এলাকায় বাড়ির উঠানে রায়হান কবিরকে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করে মোরশেদ। ঘটনার পরপর জনতা খুনি মোরশেদ ও তার স্ত্রীকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। এই সময় হত্যার কাজে ব্যবহৃত দা ও ছুরি উদ্ধার করা হয়। রায়হান খুনের ঘটনায় ২০ সেপ্টেম্বর মোরশেদ ও তার স্ত্রী খুরশিদা ৪ জনের নাম উল্যেক্ষ করে ও অজ্ঞাত আরো কয়েকজনকে আসামী করে উখিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছে নিহত রায়হানের বোন গোল নাহার ।

রায়হান খুনের ঘটনায় রহস্য উৎঘাটন ও জড়িত আসামীদের গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি মর্জিনা আকতার মরজু। এই ঘটনায় যারাই জড়িত থাকবে তারা যতোই প্রভাবশালী হোক, তাদের আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানান ওসি মরজিনা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme