1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ছয় দফা দাবীতে সিবিআইইউ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। ইসলামাবাদে গভীর রাতে সশস্ত্র হামলাঃনগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটের অভিযোগ! পশ্চিম টেকপাড়া সমাজকল্যাণ পরিষদ কর্তৃক শহর পুলিশ ফাঁড়ি কক্সবাজার এর সাথে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ঈদগাঁও প্রেস ক্লাবের জরুরী সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ঈদগাঁওতে পরিবেশ আন্দোলনের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। ঈদগাঁওর বাঁশঘাটায় তিনটি দোকান সিলগালা বাঁশখালী ছনুয়ার মানুষের যোগাযোগ সড়কের বেহাল দশা অবসানের পথে ইসলামাবা‌দের আ‌লো‌চিত জবর মুল্লুক হত্যা মামলার আসামী‌দের রিমা‌ন্ডে নি‌তে গ‌ড়িম‌সি পু‌লি‌শের ! ঈদগাঁও বাজা‌রে সড়‌কের উপর দোকান নির্মাণ, ভূ‌মি অ‌ফি‌সের নি‌ষেধাজ্ঞা ইসলামের প্রচার-প্রসারে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি: শেখ হাসিনা।

ঘাম ঝরিয়ে মানিক পেলেন ১ ভোট, ঘরে বসেই বাদলের ৪০

  • আপডেট টাইম: Saturday, October 3, 2020
  • 64 বার পড়া হয়েছে

বাফুফের নির্বাচনকে ঘিরে নাটকীয়তা চূড়ান্ত রূপ পেয়েছে। নির্বাচনের আগের রাতে নিজেকে সভাপতি প্রার্থী ঘোষণা করেন বাদল রায়। এর আগে শারীরিক অসুস্থতার কথা বলে, প্রার্থিতা বাতিলের দিন সময় পেরিয়ে যাওয়ার পর, নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন তিনি।

নির্বাচনের আগের রাতে তাই সভাপতি হিসেবে নিজেকে ঘোষণা করার সুযোগ ছিল বাদল রায়ের। সেটিই কাজে লাগান তিনি। কোনো ধরণের প্রচারণা না চালিয়েও, শেষমুহূর্তে ফিরেই তিনি পেয়েছেন ৪০টি ভোট।

অন্যদিকে, কাজী সালাউদ্দিনের একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে এতদিন মাঠে ছিলেন জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক এবং কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক। প্রচার-প্রচারণায় বেশ ব্যস্ত সময় পার করেছেন তিনি। তবে শেষপর্যন্ত ভোটারদের মন গলাতে পারেননি মানিক। মাত্র ১টি ভোট পড়েছে তার ব্যালটে।

সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে আরো একবার বাফুফের সভাপতি নির্বাচিত হলেন কাজী সালাউদ্দিন। তিনি পেয়েছেন মোট ৯৪টি ভোট। এ নিয়ে টানা চতুর্থবার সভাপতি নির্বাচিত হলেন সাবেক এই ফুটবলার।

শনিবার বিকেল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত চলে বাফুফের নির্বাচন। এবারের নির্বাচনে ২১টি পদে ১৩৯ জন কাউন্সিলরের মধ্যে ১৩৫জন ভোট দিয়েছেন। 


কাজী সালাউদ্দিনের দীর্ঘদিনের সঙ্গী এবং আগের কমিটিরও সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদি এবারও বহাল রইলেন সিনিয়র সহ সভাপতি পদে। তিনি পেয়েছেন মোট ৯১টি ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শেখ মোহাম্মদ আসলাম পেয়েছেন ৪৪টি ভোট। 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme