1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ছয় দফা দাবীতে সিবিআইইউ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। ইসলামাবাদে গভীর রাতে সশস্ত্র হামলাঃনগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটের অভিযোগ! পশ্চিম টেকপাড়া সমাজকল্যাণ পরিষদ কর্তৃক শহর পুলিশ ফাঁড়ি কক্সবাজার এর সাথে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ঈদগাঁও প্রেস ক্লাবের জরুরী সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ঈদগাঁওতে পরিবেশ আন্দোলনের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। ঈদগাঁওর বাঁশঘাটায় তিনটি দোকান সিলগালা বাঁশখালী ছনুয়ার মানুষের যোগাযোগ সড়কের বেহাল দশা অবসানের পথে ইসলামাবা‌দের আ‌লো‌চিত জবর মুল্লুক হত্যা মামলার আসামী‌দের রিমা‌ন্ডে নি‌তে গ‌ড়িম‌সি পু‌লি‌শের ! ঈদগাঁও বাজা‌রে সড়‌কের উপর দোকান নির্মাণ, ভূ‌মি অ‌ফি‌সের নি‌ষেধাজ্ঞা ইসলামের প্রচার-প্রসারে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি: শেখ হাসিনা।

১২-১৩ অক্টোবর পণ্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক

  • আপডেট টাইম: Saturday, October 3, 2020
  • 96 বার পড়া হয়েছে

অর্থ ডেস্কঃ সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনসহ ৯ দফা দাবিতে ১২ অক্টোবর থেকে সারা দেশে ৪৮ ঘণ্টার পণ্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ।

শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামে একটি কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত সমন্বয় সভা থেকে ধর্মঘটের এ ডাক দেয় সংগঠনটি।

বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটি সভাটি আয়োজন করে। সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির আহ্বায়ক মো. আবদুল মান্নান। সভায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী পণ্য পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, ন্যায্য দাবি আদায়ের জন্য এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

ওসমান আলী বলেন, পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের স্বার্থের কথা বিবেচনা না করে সরকার সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ বাস্তবায়ন করেছে। ফলে সারা দেশে পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য চলছে। ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে এ আইন সংশোধনসহ পরিবহনে নৈরাজ্য ঠেকাতে ৯ দফা দাবি দেওয়া হয়েছে। দাবি আদায়ের অংশ হিসেবে ১২ ও ১৩ অক্টোবর পণ্য পরিবহন ধর্মঘট পালন করা হবে।

সব পরিবহন মালিক-শ্রমিক সংগঠনকে সঙ্গে নিয়ে আন্দোলন আরও বেগবান করা হবে বলে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, দাবি আদায়ের জন্য ধাপে ধাপে ৯৬ ঘণ্টা এবং প্রয়োজনে অনির্দিষ্টকাল ধর্মঘট ডাকা হবে। ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান, প্রাইমমুভার, মিনিট্রাক ও লরি না চললে দেশের বিভিন্ন বন্দর ও স্থান দিয়ে আমদানি-রপ্তানি করা সব ধরনের গার্মেন্টস, খাদ্য ও বিভিন্ন পণ্য পরিবহন বন্ধ হয়ে যাবে। এতে সরকার বেকায়দায় পড়বে। সরকারকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলার জন্য সংগঠনের উদ্দেশ্য নয়। সড়ক পরিবহন আইন সব পরিবহনের জন্য সমান হওয়া উচিত বলে তিনি উল্লেখ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme