1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ঈদগাঁওর বাঁশঘাটায় তিনটি দোকান সিলগালা বাঁশখালী ছনুয়ার মানুষের যোগাযোগ সড়কের বেহাল দশা অবসানের পথে ইসলামাবা‌দের আ‌লো‌চিত জবর মুল্লুক হত্যা মামলার আসামী‌দের রিমা‌ন্ডে নি‌তে গ‌ড়িম‌সি পু‌লি‌শের ! ঈদগাঁও বাজা‌রে সড়‌কের উপর দোকান নির্মাণ, ভূ‌মি অ‌ফি‌সের নি‌ষেধাজ্ঞা ইসলামের প্রচার-প্রসারে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি: শেখ হাসিনা। হ্নীলার দালাল আবছার রোহিঙ্গা নারীসহ বিমানবন্দরে আটক। জনগণের দুর্ভোগ লাগব করতে দ্রুত টেকসই সড়ক উপহার দিবো -কউক চেয়ারম্যান বিষপানে পুত্রবধূ নাসরিনের আত্মহত্যা সাংসদের ওয়ার্ডের রাস্তার ইট বিক্রি করে দিল মেম্বার! ইসলামবাদে (ব্র্যাক)আইন সহায়তা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ঈদগাঁও বাজারে যত্রতত্র ট্রাক, টমটম, সিএনজি, অবৈধ পার্কিং এবং আমদানি রপ্তানিতে সময় নির্ধারণ না থাকায় যানজট যেন দিন দিন বেড়েই চলছে

  • আপডেট টাইম: Thursday, October 8, 2020
  • 186 বার পড়া হয়েছে

দুর্ভোগে পড়ছে হাসপাতালে আসা রোগী সহ বাজারে আসা সাধারণ ক্রেতারা দেখার কেউ নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক: কক্সবাজার সদর উপজেলার আওতাধীন ঈদগাঁও বাজার দক্ষীণ চট্রগামের সবচেয়ে বৃহত্তর বাজার। এই ঈদগাঁও বাজারের বিভিন্ন সড়ক ও ফুটপাত দখল করে নিয়েছে সিএনজি, স্কুটার ও অটোরিক্সা। ফলে প্রতি মুহূর্তে সৃষ্টি হচ্ছে তীব্র যানজট। এতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয় শিক্ষার্থী, চাকুরিজীবী ও শ্রমজীবী মানুষসহ সর্বস্তরের জনসাধারণকে। মাত্র দুই-তিন মিনিটের জায়গা পারাপার হতে কখনো কখনো আধা ঘণ্টারও বেশি সময় যানজটের কবলে থাকতে হয় যাত্রীদের। যার ফলে যথাসময়ে নির্দিষ্ট স্থানে পেঁৗছাতে পারে না। সরজমিনে দেখা গেছে, কক্সবাজার সদরের ব্যস্ততম ঈদগাঁও বাজারের বাস স্টেশনের মাথা হতে বঙ্কিম বাজের ৫ রাস্তার মোড় পর্যন্ত এবং হাই স্কুল গেইট এশিয়া ফার্মেসি হতে বাশঘাটা ব্রিজ পর্যন্ত বাজারের মেইন রোডের পুরোটাই দখল করে রেখেছে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা টমটম, মিনিটমটম স্ট্যান্ড, অটোরিক্সা স্ট্যান্ড এবং হকাররা। একাধিক সারি এবং এলোমেলোভাবে যান রেখে প্রতিনিয়ত যানজট সৃষ্টি করছে টমটম, স্কুটার ও অটোরিক্সা। এছাড়াও প্রতিনিয়ত ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। রাস্তার ওপর সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বিভিন্ন পণ্যবাহী ট্রাক ও পিকআপ ভ্যান দাঁড় করিয়ে রাস্তা সংলগ্ন ব্যবসায়ীদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গম, চাল, কাঁচামাল, রড, সিমেন্ট, অ্যাঙ্গেলসহ বিভিন্ন প্রকার পণ্য লোড-আনলোড করে আসছে। এতে রাস্তার বেশিরভাগ অংশ বড় বড় ট্রাকের দখলে চলে যাওয়ায় রাস্তাগুলোতে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। এ নিয়ে প্রায়ই নাগরিক ও সিএনজি , টমটম, স্কুটার চালকদের সঙ্গে ট্রাক চালকদের ঝগড়া করতেও দেখা যায়। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে পড়ছে হাসপাতালে আসা রোগী ও স্কুল-কলেজে যাতায়াতকারী শিক্ষার্থীদের। ঈদগাঁও বাস স্টেশনেও ঠিক একই চিত্র দেখা যায়। কখনো কখনো এই যানজট এতোটাই দীর্ঘ হয়, যা পার হতে লেগে যায় প্রায় ঘণ্টাখানেক। এসব সড়কের দু পাশে হকার, ওয়েল্ডিং দোকানদারগণ অবৈধভাবে সড়ক দখল করে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। এ অবৈধ অস্থায়ী দোকানের কারণে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীসহ সাধারণ লোকজন ও যানবাহন নির্বিঘ্নে যাতায়াত করতে পারছে না। এছাড়া রাস্তার দু পাশে রাস্তার ওপর সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বিভিন্ন পণ্যবাহী ট্রাক ও পিকআপ ভ্যান রাস্তার ওপর দাঁড় করিয়ে গ্যাস সিলিন্ডার, আলু, সার, রড, সিমেন্ট, টিভি-ফ্রিজ, অ্যাঙ্গেলসহ বিভিন্ন প্রকারের মালামাল লোড-আনলোড করে আসছে। এতে রাস্তার সিংহভাগ বন্ধ হয়ে থাকে বড় বড় ট্রাকের দখলে। ব্যস্ততম বাজারের এ সড়কটি তাদের দখলে থাকায় সার্বক্ষণিক যানজট লেগেই তাকে। অনুসন্ধানে উঠে এসেছে এসব অবৈধ স্থাপনা ও ভ্রাম্যমাণ দোকান থেকে ইজারার নামে প্রতিদিন হাজার হাজার টাকা চাঁদাবাজি করছে একটি মহল। এরা প্রতিটি দোকান থেকে দৈনিক ২০০-৩০০ টাকা আদায় করছে। এ রাস্তাটি দিয়ে প্রশাসনের সর্বোচ্চ কর্মকর্তারা প্রায় সময় যাতায়াত করলে না দেখার ভান করে চলে যান তারা। যেন মনে হয় রাস্তা দখলের এ চিত্রটি তাদের চোখের নজরে পড়ছে না-এমন মন্তব্য ভুক্তভোগী জনসাধারণের। নাম প্রকাশে অনিছুক এক জন ব্যবসায়ী জানান বাজার দিন দিন বৃদ্ধি হওয়া এই যানজঠে ব্যবসায় আয় কমে যাচ্ছে। অচিরেই এসব অবৈধ টমটম-অটোরিক্সা স্ট্যান্ড এবং রাস্তার ওপর অবাধে ট্রাক থামিয়ে মালামাল নামানো বন্ধ না করলে বাজার বিমুখ হতে শুরু করবে সাধারণ মানুষ। তাই বিষয়টি অতি দ্রুত সমাধান করা প্রয়োজন। এ ব্যপারে বাজার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রাজিবুল হক চৌ: রিকুর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে কল রিছিভ না করায় যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নাই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme