1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ঈদগাঁওর বাঁশঘাটায় তিনটি দোকান সিলগালা বাঁশখালী ছনুয়ার মানুষের যোগাযোগ সড়কের বেহাল দশা অবসানের পথে ইসলামাবা‌দের আ‌লো‌চিত জবর মুল্লুক হত্যা মামলার আসামী‌দের রিমা‌ন্ডে নি‌তে গ‌ড়িম‌সি পু‌লি‌শের ! ঈদগাঁও বাজা‌রে সড়‌কের উপর দোকান নির্মাণ, ভূ‌মি অ‌ফি‌সের নি‌ষেধাজ্ঞা ইসলামের প্রচার-প্রসারে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি: শেখ হাসিনা। হ্নীলার দালাল আবছার রোহিঙ্গা নারীসহ বিমানবন্দরে আটক। জনগণের দুর্ভোগ লাগব করতে দ্রুত টেকসই সড়ক উপহার দিবো -কউক চেয়ারম্যান বিষপানে পুত্রবধূ নাসরিনের আত্মহত্যা সাংসদের ওয়ার্ডের রাস্তার ইট বিক্রি করে দিল মেম্বার! ইসলামবাদে (ব্র্যাক)আইন সহায়তা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ঈদগাঁওতে এক বন্যহাতির রহস্যজনক মৃত্যু সাংবাদিক প্রবেশে বাঁধা ও বনবিভাগের লুকোচুরি !

  • আপডেট টাইম: Monday, December 21, 2020
  • 85 বার পড়া হয়েছে

ডেস্ক রিপোর্ট

কক্সবাজারের উত্তর বনবিভাগের ফুলছড়ি রেঞ্জের আওতাধীন রাজঘাট বিটের ক্যাম্পচর নামক স্থানে রহস্যজনক ভাবে বন্যহাতির মৃতদেহ পড়ে আছে। মৃত্যু হাতি নিয়ে নানা নাটকীয়তা শুরু করেছে বনকর্মীরা।

সরেজমিনে দেখা যায় রাজঘাট বন বিটের ক্যাম্পচর নামক স্থানে পাহাড়ের নিচে রহস্যজনক ভাবে মৃত্যু হাতিটি পড়ে আছে কে বা কারা হাতিটি মারলো। তাই নিয়ে এলাকাবাসীর মাঝে কৌতু হলো সৃষ্টি হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন স্থানীয় বাসিন্দা বলেন। বন কর্মকর্তা হাসানের অবহেলার কারণে বন্য হাতি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে বলে জানান।

আরো জানা যায় যে বন কর্মকর্তা হাসান ও হেটম্যান ফিরোজ মিলে সরকারি জায়গা বিক্রি করে।তৈয়বা প্রকাশ (ঘুরানি) কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়া। শাহজাহান নামের একজনকে গাছ কেটে বিক্রি করা। ভোমরীয় ঘোনা এক দোকানে সার বিক্রি করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়া সহ বিভিন্ন অপকর্মের সাথে জড়িত বলে ও জানান।

এমনকি মৃত্যু বন্যহাতি টাকেও বর্ন কর্মকর্তারা রাতের আঁধারে মাটিতে পুঁতে ফেলতেও পারেন বলে ধারণা করেন।

ঘটনাস্থলে বন কর্মকর্তা ডেপোর কাছে মৃতৃহাতির দেহ পরিদর্শন করার জন্য পারমেশন চাইলে সংবাদ কর্মী ঘটনা স্থলে যাওয়াতে বাধা সৃষ্টি করেন, কক্সবাজার উত্তর বন কর্মকর্তা ডিপোর কাছে সংবাদ কর্মীরা প্রশ্ন করলে আমাদের কেন যেতে দেওয়া হচ্ছে না, ডিপো বলেন ময়না তদন্তের পর আপনাদের কে জানানো হবে।

ফাইলছবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme