1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ইসলামাবাদ ইউনিয়ন আ,লীগের উদ্যোগে ৭২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীদের দলীয় পদ পদবীর বিষয়ে অসনি সংকেট ছয় দফা দাবীতে সিবিআইইউ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। ইসলামাবাদে গভীর রাতে সশস্ত্র হামলাঃনগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটের অভিযোগ! পশ্চিম টেকপাড়া সমাজকল্যাণ পরিষদ কর্তৃক শহর পুলিশ ফাঁড়ি কক্সবাজার এর সাথে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ঈদগাঁও প্রেস ক্লাবের জরুরী সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ঈদগাঁওতে পরিবেশ আন্দোলনের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। ঈদগাঁওর বাঁশঘাটায় তিনটি দোকান সিলগালা বাঁশখালী ছনুয়ার মানুষের যোগাযোগ সড়কের বেহাল দশা অবসানের পথে ইসলামাবা‌দের আ‌লো‌চিত জবর মুল্লুক হত্যা মামলার আসামী‌দের রিমা‌ন্ডে নি‌তে গ‌ড়িম‌সি পু‌লি‌শের !

রাজারকুল রেঞ্জের আপারেজু বিট কর্মকর্তা জসীম উদ্দীনের অপকর্মের খতিয়ান ।

  • আপডেট টাইম: Tuesday, December 22, 2020
  • 213 বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিনিধিঃরামু

কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগ রামুর রাজারকুল রেঞ্জের আপারেজু বিট কর্মকর্তা জসীম উদ্দীনের দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। থোইংগা কাটা হাতিরঢেপার স্হায়ী বসবাস রত ফরিদুল আলম জানান, গত এক সপ্তাহ আগে তার বাড়ির পাশে জাম বাগানে বাড়ির জন্য ঝাড়ু কাটতে গেলে, তাকে আটক করে বিট কর্মকর্তা জসীম উদ্দিন এবং আপারেজু বিটের স্টাফ বিমল বড়ুয়া,মুসলিম উদ্দিন সহ তাকে বিট অফিসে নিয়ে আসে। সকাল ১০ টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত আটকে রাখা হয় ফরিদুল আলম কে, আপারেজু অফিসে তার স্ত্রী রোকিয়া বেগম খবর পেয়ে বিট কর্মকর্তা জসীমউদ্দীনের সাথে কথা বলতে চাইলে, জসীম উদ্দীন বিমল বড়ুয়ার সাথে কথা বলতে বলেন, বিমল বড়ুয়া একপাশে ডেকে নিয়ে কোর্টে চালান দেওয়ার ভয় দেখিয়ে রোকেয়া বেগম থেকে ১০ হাজার টাকা আদায় করার পর স্হানীয় নুরুলহক মেনেজারের কাছ থেকে মুচলেখা নিয়ে তার স্বামী ফরিদুল আলম কে ছেড়ে দেয় বলে জানান।

দারিয়ার দিঘী পুর্বপাড়ার নুরুল ইসলাম জানান, তার ২০ বছরের পুরনো বাড়ি সংস্কার করতে চাইলে মামলার ভয় দেখিয়ে বিট কর্মকর্তা জসীম উদ্দিন এবং তার স্টাফরা ১৫ হাজার টাকা চাঁদা নেয় বলে অভিযোগ উঠেছে । থোয়াইংগা কাটা জুম্মাপাড়া এক মালেশিয়া প্রবাসীর স্ত্রী জানান, তার কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা নেন, টাকা না দিলে বাড়ির সংস্কার কাজ করতে দেওয়া হবে না বলে হুমকি দেন বিট কর্মকর্তা জসীমউদ্দীন।

একই এলাকার আবুল হোসেনের কাছ থেকে ১৫ হাজার টাকা নেনববলে জানান আবুল হোসেন, একই এলাকার কামাল উদ্দিন এর কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা নেন। স্হানীয় পান চাষিরা পান চাষের ওপর জীবিকা নির্ভরশীল, তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে ৩ হাজার টাকা করে চাদাঁ নেওয়া হয়েছে বলে ও জানান।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান এই এলেকায় আনুমানিক ২৫ টা মত পানের বরজ থাকলেও কেউ জসীমউদ্দীনের অনুমতি বিহীন পানের বরজ করতে পারেনি বলে জানান পান চাষীরা, তারা জানান তাদের একমাত্র আইয়ের উৎস হচ্ছে পান চাষ কিন্তু তারা বিট কর্মকর্তা জসীম উদ্দীনের কাছে জিম্মি হয়ে রয়েছে , তারা আরো বলেন, বিট কর্মকর্তা জসীম উদ্দিন এবং তার স্টাফ বিমল বড়ুয়া এবং মুসলিম উদ্দিন মাসিক মাশোয়ারার জন্য আমাদেরকে মানসিক চাপের মধ্যে রেখেছেন।
তাদের প্রত্যেকের জোর দাবি কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. হুমায়ুন কবির মহোদয় যদি অসহায় হতদরিদ্র গ্রামের মানুষের দিকে সুদৃষ্টি দেন তাহলে বিট কর্মকর্তা জসীমউদ্দীনের জুলুম অত্যাচার থেকে মুক্তি পাবেন বলে আশাবাদী।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme