1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ছয় দফা দাবীতে সিবিআইইউ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। ইসলামাবাদে গভীর রাতে সশস্ত্র হামলাঃনগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটের অভিযোগ! পশ্চিম টেকপাড়া সমাজকল্যাণ পরিষদ কর্তৃক শহর পুলিশ ফাঁড়ি কক্সবাজার এর সাথে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ঈদগাঁও প্রেস ক্লাবের জরুরী সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ঈদগাঁওতে পরিবেশ আন্দোলনের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। ঈদগাঁওর বাঁশঘাটায় তিনটি দোকান সিলগালা বাঁশখালী ছনুয়ার মানুষের যোগাযোগ সড়কের বেহাল দশা অবসানের পথে ইসলামাবা‌দের আ‌লো‌চিত জবর মুল্লুক হত্যা মামলার আসামী‌দের রিমা‌ন্ডে নি‌তে গ‌ড়িম‌সি পু‌লি‌শের ! ঈদগাঁও বাজা‌রে সড়‌কের উপর দোকান নির্মাণ, ভূ‌মি অ‌ফি‌সের নি‌ষেধাজ্ঞা ইসলামের প্রচার-প্রসারে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি: শেখ হাসিনা।

আগামীকাল উদ্বোধন হতে যাচ্ছে বহুল প্রতিক্ষীত “ঈদগাঁও থানা”

  • আপডেট টাইম: Monday, January 18, 2021
  • 141 বার পড়া হয়েছে

 


সোয়াইফুল হক :

কক্সবাজার জেলা পুলিশের আওতায় আরো একটি নতুন থানা যোগ হচ্ছে আগামীকাল বুধবার (২০ জানুয়ারী)। কক্সবাজার সদর উপজেলার ০৫(পাঁচ)টি জনবহুল ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত এই থানার নামকরণ করা হয়েছে ” ঈদগাঁও থানা”। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল (এমপি) স্ব-শরীরে উপস্থিত থেকে ঈদগাঁও বাসীর বহুল প্রত্যাশিত এই নতুন থানা ভবনটি উদ্বোধন করবেন বলে নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার জেলা পুলিশ।

জানা যায়, ঈদগাঁও থানার এই ভবনটি তৈরীর পর বিগত প্রায় এক বছর ধরে “ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্র” হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছিল। সেসময় ভবনটি উদ্বোধন করা হলেও বছর ঘুরতেই পূর্নাঙ্গ থানা হিসেবে পুনরায় উদ্বোধন করা হচ্ছে। দেশের মানচিত্রে একটি নতুন পূর্নাঙ্গ থানা হিসেবে এই ভবনটি উদ্বোধন করতে আগামী কাল ২০ জানুয়ারী সকাল ১১ টা নাগাদ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল (এমপি) এবং বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ ঈদগাঁওতে পৌঁছবেন বলে জানা গেছে।

মন্ত্রীর একান্ত সচিব দেওয়ান মাহবুবুর রহমান জানান, ২০ জানুয়ারী বুধবার ঈদগাঁও থানার নবনির্মিত ভবনটি উদ্বোধন করতে সকাল ১১ টায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঈদগাঁও আসবেন। ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রকে থানা হিসাবে রূপান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে যোগ দেবেন। একই দিন বিকেল সাড়ে তিনটায় হেলিকপ্টার যোগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি কক্সবাজার ত্যাগ করবেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ( এমপি ) এর সাথে থানা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি) ড. বেনজীর আহমেদ, বাংলাদেশ পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তা এবং স্থানীয় জন প্রতিনিধিরা ।

এ দিকে তারা দুজ’নে আজ উখিয়ায় রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্প-৪, এক্সটেনশন-এ তে রোহিঙ্গা শরনার্থী মাঝিদের সাথে মতবিনিময় করবেন। একইদিন রাত ৮ টায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বল প্রয়োগে বাস্তুচ্যুত মায়ানমার নাগরিকদের (রোহিঙ্গা শরনার্থীদের) সমন্বয়, ব্যবস্থাপনা ও আইনশৃংখলা সম্পর্কৃত নির্বাহী কমিটির অনুষ্ঠানে মতবিনিময় করবেন। পরদিন ২০ জানুয়ারী বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টায় শহরের গোলদীঘি, বায়তুশ শরফ আনঞ্জুমানে ইত্তেহাদ পরিদর্শন, সকাল পৌনে ১১ টায় বিজিবি কর্তৃক উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য ধ্বংসকরণ অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন বলে জানা গেছে। এবং একই দিন বিকেল সাড়ে তিনটায় হেলিকপ্টার যোগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি কক্সবাজার ত্যাগ করবেন বলে জানা গেছে।

এদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং আইজিপি’র আগমনকে কেন্দ্র করে ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রকে ভিন্ন রুপে সাজিয়েছেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি শেখ মুনীর উল গীয়াসের নেতৃত্বে ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আব্দুল হালিমের বিশেষ টিম। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি’র আগমনকে কেন্দ্র কওে ঈদগাঁও জুড়ে নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে বলে জেলা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে।

উল্লেখ যে, বৃহত্তর ঈদগাঁর জনসাধারণ দীর্ঘ বছর ধরে ঈদগাঁওকে উপজেলা বাস্তবায়ন করার দাবী জানিয়ে বিভিন্ন আন্দোলন করে আসছিলেন। এরই প্রেক্ষিতে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী উপজেলা বাস্তবায়নের প্রথম ধাপ শুরু করেন ঈদগাঁওকে থানা হিসেবে রুপান্তরের ঘোষনা দিয়ে। তারই ধারা বাহিকতায় ইসলামাবাদ, ইসলামপুর, ঈদগাহ্, জালালাবাদ, পোকখালী ইউনিয়ন সমুহ নিয়ে ঈদগাঁও থানা হিসেবে কাজ করার চিঠি আসলেও আগামীকাল পূর্ণাঙ্গ ভাবে বাস্তবায়নের নিমিত্তে শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করা হবে ঈদগাঁও বাসীর স্বপ্নের ” ঈদগাঁও থানা “। স্থানীয়রা জানান, আমাদের যে কোন আইনি সহায়তার জন্য প্রাথমিক ভাবে ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রে গেলেও তদন্ত কেন্দ্রে অনেক কিছু অসম্পুর্ন থাকায় কক্সবাজার শহরে কক্সবাজর মডেল থানায় চলে যেতে হতো। ফলে একদিকে যেমন অনেক সময় অপচয় হতো, অন্যদিকে বিভিন্ন অনিয়ম- প্রতারনা বা হয়রানীর শিকার হতে হত সাধারন বিচার প্রার্থীদের। স্থানীয়রা আরো জানান, আমরা এখন অনেক খুশি যেহেতু এ সব থেকে মুক্তি পাব। কষ্ট করে শহরে গিয়ে থানার সহযোগীতা নিতে হবে না। এবং তারা আরো জানান পুলিশ জনগনের বন্ধু তারা আমাদের জান মাল রক্ষার দায়ীত্বে রয়েছে আমরাও আমাদের সধ্যমত তাদের সার্বীক সহযোগীতা করে যাব।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme