1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ইসলামাবাদ ইউনিয়ন আ,লীগের উদ্যোগে ৭২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীদের দলীয় পদ পদবীর বিষয়ে অসনি সংকেট ছয় দফা দাবীতে সিবিআইইউ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। ইসলামাবাদে গভীর রাতে সশস্ত্র হামলাঃনগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটের অভিযোগ! পশ্চিম টেকপাড়া সমাজকল্যাণ পরিষদ কর্তৃক শহর পুলিশ ফাঁড়ি কক্সবাজার এর সাথে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ঈদগাঁও প্রেস ক্লাবের জরুরী সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ঈদগাঁওতে পরিবেশ আন্দোলনের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। ঈদগাঁওর বাঁশঘাটায় তিনটি দোকান সিলগালা বাঁশখালী ছনুয়ার মানুষের যোগাযোগ সড়কের বেহাল দশা অবসানের পথে ইসলামাবা‌দের আ‌লো‌চিত জবর মুল্লুক হত্যা মামলার আসামী‌দের রিমা‌ন্ডে নি‌তে গ‌ড়িম‌সি পু‌লি‌শের !

জনগণের বন্ধু ও দেশের সেবক হিসাবে সকলের পাশে থাকতে চাই পুলিশ সুপার: জেরিন আখতার

  • আপডেট টাইম: Thursday, March 18, 2021
  • 66 বার পড়া হয়েছে

রিমন পালিত: বান্দরবান প্রতিনিধি:
দেশমাতৃকার জন্য অন্যান্য সকল বাহিনীর মতো বাংলাদেশের শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় দেশের কল্যাণে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশ।

আজ ১৪ মার্চ বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশের সকল কর্মকান্ড কে আরও উন্নতির দিকে তরান্নিত করার জন্য বান্দরবান জেলা পুলিশের আয়োজনে বালাঘাটা পুলিশ লাইন্সে এক মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বান্দরবান জেলার পুলিশ সুপার জেরিন আখতার (বিপিএম) এর সভাপতিত্বে মাসিক কল্যাণ সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ কুদ্দুস ফরাজী (পিপিএম), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জেলা বিশেষ শাখার প্রধান অশোক কুমার পাল (পিপিএম) , সহকারি পুলিশ সুপার আসিফ মাহমুদ।

এছাড়াও সকল অতিথিবৃন্দের পাশাপাশি মাসিক কল্যাণ সভায় মুক্ত আলোচনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বান্দরবান সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) মোঃ শহিদুল ইসলাম , সহ আরো অনেকে।

কল্যাণ সভায় বান্দরবান জেলা পুলিশ সুপার জেরিন আখতার বলেন জনগণের বন্ধু ও দেশের সেবক হিসাবে সকলের পাশে থাকতে চাই এজন্যই বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেছি। করোনাকালীন সময়ে বাংলাদেশের সকল পুলিশ সদস্যের পাশাপাশি বান্দরবান জেলার পুলিশ সদস্যরা অক্লান্ত পরিশ্রম করেছে। এছাড়াও যে কোনো কর্মসূচিতে বাংলাদেশ পুলিশ অংশগ্রহণ করে সুনামের সাথে একটি কৃতিত্ব অর্জন করেছে । তাই এই গৌরব শুধু বাংলাদেশ পুলিশের নয় বাংলার প্রতিটা মানুষের । বাংলাদেশের জনগণ তাদের সেবা করার জন্য আমাদের সুযোগ দিয়েছে বিদায় আমরা আমাদের সর্বোচ্চ দিয়ে সকল মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছি আশা করছি ভবিষ্যতে বাংলাদেশ পুলিশকে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবো এবং তার জন্য আমি আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা করব।

পরিশেষে সকলের মঙ্গল উন্নতি ও কর্মের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করা হয় এবং উপস্থিত সকল পুলিশ সদস্যের মধ্যে থেকে মুক্ত মতামত গ্রহণ করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme