1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ঈদগাঁওর বাঁশঘাটায় তিনটি দোকান সিলগালা বাঁশখালী ছনুয়ার মানুষের যোগাযোগ সড়কের বেহাল দশা অবসানের পথে ইসলামাবা‌দের আ‌লো‌চিত জবর মুল্লুক হত্যা মামলার আসামী‌দের রিমা‌ন্ডে নি‌তে গ‌ড়িম‌সি পু‌লি‌শের ! ঈদগাঁও বাজা‌রে সড়‌কের উপর দোকান নির্মাণ, ভূ‌মি অ‌ফি‌সের নি‌ষেধাজ্ঞা ইসলামের প্রচার-প্রসারে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি: শেখ হাসিনা। হ্নীলার দালাল আবছার রোহিঙ্গা নারীসহ বিমানবন্দরে আটক। জনগণের দুর্ভোগ লাগব করতে দ্রুত টেকসই সড়ক উপহার দিবো -কউক চেয়ারম্যান বিষপানে পুত্রবধূ নাসরিনের আত্মহত্যা সাংসদের ওয়ার্ডের রাস্তার ইট বিক্রি করে দিল মেম্বার! ইসলামবাদে (ব্র্যাক)আইন সহায়তা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ফুলছড়িতে অর্ধশত বাড়ী উচ্ছেদঃ ৫ একর জমি দখল মুক্ত

  • আপডেট টাইম: Monday, March 29, 2021
  • 76 বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
কক্সবাজার উত্তর বনিভাগের আওতাধীন,ফুলছড়ি রেঞ্জের অধীন,ফুলছড়ি বনবিটে উচ্ছেদ অভিযান চালান বনিভাগ।এতে অর্ধশত বাড়ী উচ্ছেদ ও প্রায় ৫ একর জমি দখলমুক্ত করা হয়।

সোমবা (২৯ মার্চ) সকাল ১১টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত এ উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়েছে।

উক্ত উচ্ছেদ অভিযানটি চকরিয়া উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ তানভীর হোসেন এবং কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের সহকারী বন-সংরক্ষক (এসিএফ) সোহেল রাণার নেতৃত্বে পরিচালনা করা হয়েছে।

অভিযান চলাকালে দেখা যায়,ফুলছড়ি বনবিটের জুন্নাকাটা এলাকায় অবৈধভাবে বনভূমি দখল করে গড়ে তুলে অর্ধশত বাড়ী।এসব বাড়ীগুলো বেশীভাগই মাটির দেওয়াল টিনের ছাউনী দিয়ে তৈরী করা।বাকী ২০টির মত বাঁশের বেড়াঁ টিন আর কাগজের ছাউনী।এসব বাড়ীগুলো কেটে দেওয়াল ভেঙ্গে দুমুড়ে-মুচড়ে দিয়েই উচ্ছেদ করা হয়েছে।তবে অভিযান চলাকালে এসমস্ত বাড়ীর কোন লোকজন উপস্হিত নেই।জানা গেছে,অভিযানের চালাবে খবর পেয়ে সবাই বাড়ী ছেড়ে পালিয়েছে।এতে ৫হেক্টর মত ভূমি দখল করল বনবিভাগ।

উচ্ছেদ অভিযানের বিষয়ে ফাঁসিয়াখালী ও ফুলছড়ি রেঞ্জের ভারপ্রাপ্ত রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ মাজহারুল ইসলাম জানান,অবৈধভাবে বনভূমি দখল করে গড়ে তুলা অর্ধশত বাড়ী গুড়িয়ে দিয়েছি।এতে ৫ একর ভূমি দখল মুক্ত করা হয়।যাতে পূর্ণরায় এই জায়গা দখল না হয় সেদিকে নজর থাকবে।তবে এই দখলদারদের বিরুদ্ধে বন আইন মোতাবেক ব্যবস্হা নেওয়া হবে।অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ করতে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উক্ত অভিযানে উপস্হিত ছিলেন,মেহেরঘোনার রেঞ্জ কর্মকর্তা মামুন,বাঘখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা সারওয়ার সহ ফুলছড়ির,নাপিতখালী,রাজঘাট,খুটাখালী,মেদাকচ্ছপিয়া,ডুলাহাজারা,রিংভং ফাঁসিখালী,নলবিলা,কাকারা,সুরাজপুর,মানিকপুর,মেহেরঘোনা রেঞ্জে ও বাঘখালী রেঞ্জের কয়েকজন বিট কর্মকর্তা ও চার রেঞ্জের স্টাপ,হেডম্যান,১শত জন মত ভিলেজার,ভূমি অফিসের কয়েকজন স্টাপ এবং চকরিয়া থানার এসআই মাইনদ্দিন সহ সঙ্গীয় পুরুষ,মহিলা মিলে কয়েকজন পুলিশ উপস্হিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme