1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ছয় দফা দাবীতে সিবিআইইউ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। ইসলামাবাদে গভীর রাতে সশস্ত্র হামলাঃনগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটের অভিযোগ! পশ্চিম টেকপাড়া সমাজকল্যাণ পরিষদ কর্তৃক শহর পুলিশ ফাঁড়ি কক্সবাজার এর সাথে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ঈদগাঁও প্রেস ক্লাবের জরুরী সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ঈদগাঁওতে পরিবেশ আন্দোলনের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। ঈদগাঁওর বাঁশঘাটায় তিনটি দোকান সিলগালা বাঁশখালী ছনুয়ার মানুষের যোগাযোগ সড়কের বেহাল দশা অবসানের পথে ইসলামাবা‌দের আ‌লো‌চিত জবর মুল্লুক হত্যা মামলার আসামী‌দের রিমা‌ন্ডে নি‌তে গ‌ড়িম‌সি পু‌লি‌শের ! ঈদগাঁও বাজা‌রে সড়‌কের উপর দোকান নির্মাণ, ভূ‌মি অ‌ফি‌সের নি‌ষেধাজ্ঞা ইসলামের প্রচার-প্রসারে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি: শেখ হাসিনা।

ঈদগাঁওতে হুন্ডি ব্যবসায়ী রবিউল বেপরোয়া

  • আপডেট টাইম: Friday, April 23, 2021
  • 120 বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক:

কক্সবাজার সদর উপজেলা ঈদগাঁওতে হুন্ডির ব্যবসা করে কোটি কোটি কালো টাকার মালিক হয়েছে।হুন্ডির ব্যবসা থেকে আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ বনে যাওয়া রবিউল এখন অনেকটা বেপরোয়া।

জানা যায়, ইসলামাবাদ ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড বোয়ালখালী এলাকার শাহাব উদ্দীনের ছেলে রবিউল করিম প্রকাশ( ময়নার)হুন্ডির ব্যবসা ভাগ্যের চাকা ঘুরিয়েছে।
ঈদগাঁওতে ব্যাপক হারে বেড়েছে হুন্ডি ব্যবসা, প্রশাসনের নাকের ডগায় চলছে এসব বাণিজ্য। অবৈধ হুন্ডি ব্যবসার কারণে কোটি টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার।হুন্ডিকে দ্রুত টাকা লেনদেনের মাধ্যম মনে হলেও মূলত এটি দ্রুত প্রতারিত হওয়ার মাধ্যম।

প্রতারিত হওয়ার মূল কারণ হচ্ছে হুন্ডিতে যেসব লেনদেন সংগঠিত হয় তার কোনটিই বৈধ নয়। এই লেনদেনের নেই কোন আইনগত নিরাপত্তা। তারপরও দেশে বেপরোয়া ও একচেটিয়াভাবে চলছে এই টাকা লেনদেনের অবৈধ ব্যবসা। এ ব্যবসা দেশের অর্থনীতির ওপর মারাত্মক চাপ সৃষ্টি করে চলেছে দীর্ঘদিন থেকে।

দ্রুত জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন ও অর্থের বিনিময় সহজ করার জন্যে হুন্ডি এখন দেশের আইনে একটি অবৈধ ব্যবসা। বর্তমানে অনেকে এ হুন্ডি ব্যবহার করা হচ্ছে প্রতারণা ও নানা অপরাধের মাধ্যম। এই সুযোগকে কাজে লাগাতেই এখানে সক্রিয় রয়েছে হুন্ডি চক্র। ঈদগাঁও বাজারে পন্য আমদানি-রপ্তানি বানিজ্য অসাধু হুন্ডি চক্র আর্থিক লেনদেন করে আসছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক হুন্ডির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নেয়ার পর ঈদগাঁওতে নতুন কৌশলে চলছে জমজমাট হুন্ডি ব্যবসা। হুন্ডি ব্যবসায় শুধু রাষ্ট্রেরই আর্থিক ক্ষতি হয় না, বরং প্রতারিত হয় গ্রাহকরাও- এই উপলব্ধিতে বাংলাদেশ ব্যাংক জনসাধারণকে হুন্ডির মাধ্যমে লেনদেন না করার পরামর্শ দেয়ার পাশাপাশি এ বিষয়ে ব্যাংকগুলোর প্রতি নির্দেশনাও জারি করেছে। কিন্তু এসব পরামর্শ ও ব্যাংকগুলোর প্রতি নির্দেশনা বিফলে যাচ্ছে। চোরাই পথে আনা গরুর মূল্য শোধ করা হচ্ছে হুন্ডির মাধ্যমে। ঘটনা ঘটছে এভাবে- বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ব্যাংকিং চ্যানেল বা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা সিন্ডিকেটের কাছে হস্তান্তর করা হচ্ছে। ওই সিন্ডিকেট টাকা রেখে দিয়ে এর বিনিময়ে চোরাই পণ্য, বৈদেশিক মুদ্রা, মাদকদ্রব্য ইত্যাদিসহ বিভিন্ন উপকরণ ব্যবহার করে গরুর দেনা শোধ করছে। আর এভাবেই পাচার হয়ে যাচ্ছে টাকা।

হুন্ডি ব্যবসার বিষয়টি দেশের অর্থনীতির জন্য উদ্বেগজনক। হুন্ডির মাধ্যমে কত টাকা দেশের বাইরে চলে যাচ্ছে, তার প্রকৃত হিসাব সরকারের কোনো সংস্থার কাছেই থাকে না। ফলে হুন্ডি ব্যবসা বন্ধে নিতে জোরালো পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগীরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme