1. admin@coxtimes.com : admin :
শিরোনাম :
সচেতনতায় পুলিশ মাঠে…. করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়লেও ঈদগাঁওতে বাড়েনি মানুষের মাঝে সচেতনতা ঈদগাঁওর জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠ পর্যায় ইউএনও ইসলামাবাদ ইউনিয়ন আ,লীগের উদ্যোগে ৭২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীদের দলীয় পদ পদবীর বিষয়ে অসনি সংকেট ছয় দফা দাবীতে সিবিআইইউ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। ইসলামাবাদে গভীর রাতে সশস্ত্র হামলাঃনগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটের অভিযোগ! পশ্চিম টেকপাড়া সমাজকল্যাণ পরিষদ কর্তৃক শহর পুলিশ ফাঁড়ি কক্সবাজার এর সাথে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ঈদগাঁও প্রেস ক্লাবের জরুরী সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ঈদগাঁওতে পরিবেশ আন্দোলনের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। ঈদগাঁওর বাঁশঘাটায় তিনটি দোকান সিলগালা বাঁশখালী ছনুয়ার মানুষের যোগাযোগ সড়কের বেহাল দশা অবসানের পথে ইসলামাবা‌দের আ‌লো‌চিত জবর মুল্লুক হত্যা মামলার আসামী‌দের রিমা‌ন্ডে নি‌তে গ‌ড়িম‌সি পু‌লি‌শের !

ঈদগাঁওতে তালাকপ্রাপ্ত স্বামী কর্তৃক গৃহবধূর নাক ও ঠোট কর্তনঃ তালাকপ্রাপ্ত স্বামী মুর্শেদ আটক

  • আপডেট টাইম: Thursday, May 27, 2021
  • 48 বার পড়া হয়েছে

নাছির উদ্দিন পিন্টু, ঈদগাঁও।
ঈদগাঁওতে তালাকপ্রাপ্ত স্বামী কর্তৃক গৃহবধূর নাক ও ঠোট কেটে ফেলা এবং উপুর্যপুরী কোপানোর ঘটনায় মামলা হয়েছে। এজাহারভুক্ত প্রধান আসামিকে আদালত কারাগারে পাঠিয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই গৃহবধূ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। প্রাপ্ত তথ্যে প্রকাশ, ঈদগাঁও থানাধীন ঈদগাঁও ইউপির আউলিয়াবাদ ঢালার দোয়ার এলাকার শফিকুল ইসলামের মেয়ে রুনা আক্তার (২৮) কে সম্প্রতি তার তালাকপ্রাপ্ত স্বামী মোর্শেদ মিয়া (৩৫) মুখ লক্ষ্য করে উপুর্যপুরি কোপায়। এতে তার নাক ও ঠোটের অংশবিশেষ বিচ্ছিন্ন হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। গৃহবধূর বসতঘরে এ হামলার সময় অজ্ঞাতনামা দু-তিনজন দুর্বৃত্তও ছিল। ঘটনার সময় মোর্শেদ মিয়া রুনার শ্লীলতাহানি ও তার স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় এ গৃহবধূর বর্তমান স্বামীর সহকারি ইসমাইল ও আহত হয়। স্থানীয় লোকজন রুনাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে ডাক্তাররা তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল রেফার করেন। তাকে বর্তমানে সেখানে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগির পিতা শফিকুল ইসলাম (৬৫) বাদী হয়ে ঈদগাঁও থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নম্বর-০৮ । মামলার বাদী একই এলাকার মৃত হাজী মোজাহের আহমদের পুত্র। এজাহারনামীয় এক নম্বর আসামি মোর্শেদ মিয়া ঈদগাঁও থানাধীন দক্ষিণ নাপিতখালির (হাজী পাড়া) মনছুর আলম প্রকাশ বলি মনছুরের পুত্র। ২৪ মে তারিখে থানায় এ মামলাটি রুজু করা হয়। এর আগের রাতে ভিকটিমের বসতঘরের রান্নাঘরে ঘটনাটি সংঘটিত হয়। মামলায় হত্যার উদ্দেশ্যে গুরুতর আঘাত, শ্লীলতাহানী, চুরি এবং হুমকি দেয়ার ধারা সংযোজন করা হয়। মামলাটি ঈদগাঁও থানার সাব-ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) মোঃ কামাল হোসেনকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়। এজাহারে বাদী উল্লেখ করেন যে, তিন বছর পূর্বে মুর্শেদের সাথে তার মেয়ের বিয়ে হয়েছিল। পরে সংসারে বনিবনা না হওয়ায় তালাকের মাধ্যমে উভয়ে বিচ্ছেদ হয়ে যায়। আর দুই বছর পূর্বে ফিরোজের সাথে তার মেয়ের বিয়ে হয়। এদিকে তালাকপ্রাপ্ত স্বামী অস্ত্র মামলায় দীর্ঘদিন জেল খাটার পর জামিনে এসে এ ঘটনা ঘটায় বলে অভিযোগে পরিবারের। বর্বর ও হৃদয়বিদারক এ ঘটনার পর প্রধান আসামি মোর্শেদ আদালতে জামিন আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Customized BY NewsTheme